মেনু নির্বাচন করুন

কাদিগড় জাতীয় উদ্যান

য়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের পালগাঁও এলাকায় ঘোষণার সাত বছরেও চালু হয়নি কাদিগড় জাতীয় উদ্যান। ভালুকা রেঞ্জের অধীন কাদিগড় বন বিটের আওতাধীন, সরকারীভাবে গত ২০১০ সাল থেকেই এই উদ্যানের কাজ চলছে ধীরগতিতে।

ময়মনসিংহ থেকে প্রায় ৫৬ কিলোমিটার দক্ষিণে, ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান থেকে ৪৫ কিলোমিটার উত্তরে ভালুকা সদর থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে কাদিগড় জাতীয় উদ্যান। উপজেলার কয়েকটি স্থানে আয়তনে স্বল্প পরিসরের স্থানে বেসরকারীভাবে অনেকেই গড়ে তুলেছেন বিভিন্ন নামে বাণিজ্যিক বিনোদন পার্ক, যেখানে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলার লোকজন শিক্ষা সফর-পিকনিক করতে আসতে দেখা যায়। অথচ এসব জায়গায় প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কোন ছোঁয়া নেই। গত মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, কাদিগড় জাতীয় উদ্যানের পশ্চিমদিকের অরক্ষিত প্রধান ফটকের ডালা দুটি খোলা, সেন্টিপোস্টে কোন লোকজন নেই, পাশের ওয়ালে করা চিত্রকর্মের রং উঠে পুরোনো হয়ে গেছে। একটু ভিতরে যেতে চোখে পরলো কয়েকটি গোলঘর, পুকুরের পাশে ব্যাঙের ছাতা, শিশুপার্কের দোলনা ও খেলনাগুলোতে জং ধরে গেছে। একটু ভিতরে যেতেই চোখে পড়ে উদ্যানের ওয়াচ টাওয়ার দাঁড়িয়ে আছে বনের মাঝখানে কিন্তু ওয়াচার নেই। এখানে সেখানে সিমেন্টের তৈরি বেঞ্চ পাতা রয়েছে জঙ্গল ঘেষা। মাঝে মধ্যে বানরের বহর বের হয়ে এগাছওগাছ লাফালাফি করছে আর মুখ ভেংচে উঁকি মারছে। উদ্যান সংলগ্ন আলাদা স্থানে কাদিগড় বিট অফিস যেখান থেকে বিট অফিসার কাজ পরিচালনা করে থাকেন।


Share with :

Facebook Twitter